1. admin@sottosongbad.com : admin :
আদিতমারী উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর বিরুদ্ধে মানবন্ধন। - রংপুর বার্তা
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৪:০৩ পূর্বাহ্ন

আদিতমারী উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর বিরুদ্ধে মানবন্ধন।

  • আপডেট সময় : সোমবার, ২৫ জুলাই, ২০২২
  • ৩৫ বার পঠিত

আদিতমারী উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ও কর্মচারীর বিরুদ্ধে মানবন্ধন।

আমিনুর রহমান,
নিজস্ব সংবাদমাধ্যমঃ

লালমনিরহাটের আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীদের নিম্নমানের খাবার সরবরাহ, রোগীদের সাথে দুর্ব্যবহার, অনুমোদন না নিয়ে সরকারি গাছ কাটা, সরকারি গাড়ী ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করাসহ বিভিন্ন অনিয়মের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে ভুক্তভোগী ও এলাকাবাসী।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃ পঃ কর্মকর্তা তৌফিক-ই ইলাহী এবং একই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের অফিস সহকারী মাহাবুর রহমান ওরফে (লিকু) এর বিরুদ্ধে স্বাক্ষর জালিয়াতি,অর্থ আত্নসাধ, অফিস স্টাফদের ভয় ভীতি দেখা ও জিম্মি করে অর্থ আদায়। এর আগে লালমনিরহাট সদর হনসপাতালে থাকাকালীন ২৪ লক্ষা টাকা আত্মসাৎ,লালমনিরহাট সদরে পাঁচতলা বাড়ী নির্মান ইত্যাদি বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে।

তার বিরুদ্ধে অভিযোগের ভিত্তিতে বিভাগীয় তদন্তে তা প্রমাণিত হয়। ২০১৬/১৭সালে আর্থিক দায় ভার থেকে মুক্তির জন্য তাকে বসতবাড়ী বিক্রয় করতে হয়। পরে তাকে অফিস সহকারী থেকে অফিস সহায়ক পদে পদায়ন করা হয়। এর পরে কালীগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সাক্ষর জালিয়াতি অর্থ আত্নসাৎ এর অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এদিকে রোববার (২৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে লালমনিরহাট-বুড়িমারী মহাসড়কের উপর আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন হয়।

মানববন্ধনে অংশ নেয়া ভুক্তভোগীরা জানান, উপজেলার ৮টি ইউনিয়নের মানুষের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করতে ৫০শয্যা নির্মান করে সরকার। বর্তমান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.তৌফিক আহমেদ যোগদানের পর থেকে এ হাসপাতালটি দুর্নীতির আখড়ায় পরিনত হয়েছে।

সরকারী ওষুধ রোগীদের না দিয়ে কালোবাজারে বিক্রি এবং হাসপাতালের ক্যাম্পাসের ৩০টি মেহগনি গাছ কেটে বিক্রি করে আত্মসাৎ করেন ডা.তৌফিক আহমেদ। এ ছাড়াও ফাইলের স্বাক্ষরে ঘুষ না পেয়ে দুইজন কর্মচারীর বেতন ভাতা ৮/১০ মাস বন্ধ রাখেন। যার প্রতিবাদ করায় হয়রানী করেন।

কোটেশন দরপত্রের কাজে নিজের এলাকার বন্ধুদের দিয়ে হাসপাতালের কাজের নামে ডা. তৌফিক আহমেদ লাখ লাখ টাকা আত্মসাৎ করেছেন বলে বক্তারা দাবি করেন।

চিকিৎসা সেবার মত একটি গুরুত্বপুর্ন নাগরিক অধিকার বঞ্চিত হয়ে পড়ায় স্থানীয়রা ইতঃপূর্বে গনপিটিশন দায়ের করেন যার প্রেক্ষিতে কিশোরগঞ্জে বদলির আদেশ আসে। সেটা অর্থ আর ক্ষমতার বিনিময়ে বাতিল করে সপদে বহাল রয়েছেন।

অলিউজ্জামান অলির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত লালমনিরহাট -বুড়িমারী মহাসড়কের উপর আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে মহাসড়কে দুই ঘন্টা ব্যাপি এ মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। পরে তারা বিক্ষোভ করেন। এ সময় শতাধিক ভুক্তভোগী অংশ নেয়। মানববন্ধনে অংশ গ্রহনকারীরা অবিলম্বে হাসপাতালের সকল অনিয়ম বন্ধের দাবী জানান। তারা ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষের হস্তক্ষেপ কামনা ও দায়িত্বরত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার তৌফিক আহমেদের বদলী দাবি করেন।

এ বিষয়ে আদিতমারী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তা তৌফিক এলাহী সংঙ্গে আলোচনা হলে তিনি বলেন,এক দল সার্থন্বেষি মহল সুবিধা না পেয়ে আমার বিরুদ্ধে হয়রানি ও ষড়যন্ত্র মুলক মিথ্যা মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করেন। আমি সব বিষয়ে আমার উদ্ধোর্তন কৃর্তপক্ষকে জানিয়েছি তদন্ত করে তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।

এ ঘটনায় লালমনিরহাট জেলা সিভিল সার্জন এর সঙ্গে মুঠো ফোনে কথা হলে, তিনি বলেন গাছ কর্তনের বিষয় আমি কিছুই জানিনা। তবে তদন্ত করে দোষী ব্যাক্তিদের বিরিদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত  রংপুর বার্তা- ২০২২
Theme Customized By Dev Joynal