1. admin@sottosongbad.com : admin :
ইলিশ রক্ষায় সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে শরীয়তপুর প্রশাসন। - রংপুর বার্তা
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ১১:৪১ অপরাহ্ন

ইলিশ রক্ষায় সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে শরীয়তপুর প্রশাসন।

  • আপডেট সময় : শনিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২২
  • ৫০ বার পঠিত

ইলিশ রক্ষায় সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে শরীয়তপুর প্রশাসন।

জেলা প্রতিনিধি শরীয়তপুরঃ-
মা ইলিশ রক্ষায় শরীয়তপুর জেলা প্রশাসন ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। গত ৭ অক্টোবর মধ্যরাত হতে আগামী ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মা ইলিশের প্রজনন সময়। এই সময় মা ইলিশ ধরতে নিষেধাজ্ঞা জারী করেছে সরকার। আর এই নিষেধাজ্ঞা মানতে ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছে শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসন এবং মৎস্য বিভাগ।
জেলা প্রশাসন এবং মৎস্য বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, শরীয়তপুর জেলার জাজিরা উপজেলার মাঝির ঘাট থেকে শুরু করে চাঁদপুর পর্যন্ত এই ৭০ কিলোমিটার এলাকায় বহমান পদ্মা-মেঘনা নদী হচ্ছে ইলিশের নিরাপদ প্রজনন কেন্দ্র। ইলিশ যাতে নিরাপদে প্রজনন করতে পারে সেজন্য শুধু ইলিশই নয়, ইলিশের পাশাপাশি সব ধরণের মাছ শিকার বন্ধ ঘোষণা করেছে সরকার। সেই সাথে সরকার ইলিশ ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন, মওজুদ এবং আহরণ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে।
আর সেই নিষেধাজ্ঞা বাস্তবায়নে পুলিশ, নৌ-পুলিশ, র‌্যাব, কোষ্টগার্ড, নৌবাহিনী এবং স্থানীয় প্রশাসনের মাধ্যমে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করছে।
এ ব্যাপারে শরীয়তপুরের জেলা প্রশাসক এবং জেলা টাস্কফোর্স কমিটির সভাপতি মোঃ পারভেজ হাসান বলেন, ৭ অক্টোবর থেকে ২৮ অক্টোবর পর্যন্ত মা ইলিশের প্রজনন সময়। এই সময়ে ইলিশ আহরণ, বিপণন, ক্রয়-বিক্রয়, পরিবহন, মওজুদ ও বিনিময় নিষিদ্ধ করা হয়েছে। সেই সাথে মা ইলিশের পাশাপাশি সব ধরণের মৎস্য ধরা নিষিদ্ধ করা হয়েছে।
এ ব্যাপারে জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ হাসান সোহেল বলেন আমরা
মা ইলিশ নিরাপদে যাতে ডিম ছাড়তে পারে, সেই পরিবেশ নিশ্চিত করতে সব ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। পদ্মা তীরবর্তী এলাকায় টানা ১৫ দিন মৎস্যজীবীদের নিয়ে সচেতনতামূলক সভা করা হয়েছে। সেক্ষেত্রে র‌্যালি, লিফলেট বিতরণ এবং মাইকিং করে সচেতন করা হচ্ছে। জেলেরা যেন নদীতে জাল না ফেলে সেজন্য অনেক জেলেকে গরু ও ভ্যান গাড়ি দেয়ার পাশাপাশি সরকারের পক্ষ থেকে ভিজিএফ সহয়তা প্রদান করা হচ্ছে।
আমার বিশ্বাস, মা ইলিশ রক্ষার এই ২২ দিন কঠোর অবস্থানে থেকে আমরা সরকারের নির্দেশনা বাস্তবায়ন করে ইলিশ উৎপাদনে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রাখব।
একই সাথে তিনি সর্তক করে বলেন, যদি কেউ আইন ভঙ্গ করে মাছ ধরার চেষ্টা করেন, তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
পুলিশ ও নৌপ্রশাসন এ ব্যাপারে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে থাকবে বলে আশ্যস্ত করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত  রংপুর বার্তা- ২০২২
Theme Customized By Dev Joynal