1. admin@sottosongbad.com : admin :
যে কারণে পরীক্ষার্থীর সঙ্গে কেন্দ্রে গেলো ৩০ জন স্বজন - রংপুর বার্তা
শুক্রবার, ০৯ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:৫৭ পূর্বাহ্ন

যে কারণে পরীক্ষার্থীর সঙ্গে কেন্দ্রে গেলো ৩০ জন স্বজন

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৬৮ বার পঠিত

যে কারণে পরীক্ষার্থীর সঙ্গে কেন্দ্রে গেলো ৩০ জন স্বজন

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
নেত্রকোনার দুর্গাপুরে প্রথমবারের মতো হরিজন সম্প্রদায় থেকে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেছেন বেবি বাস্পর। লেখাপড়া করে জীবনে সে অনেক বড় হতে চায়। তাকে পরীক্ষা কেন্দ্রে নিয়ে যান তার সম্প্রদায়ের ৩০ জন স্বজন।
বেবি জেলার দুর্গাপুরের জহুরা জালাল বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। পৌরসভার মুক্তারপাড়া এলাকার মৃত নির্মল বাস্পরের মেয়ে সে। বেবির মা মালা বাস্পর দুর্গাপুর ইউএনও অফিসে পরিচ্ছন্নতা কর্মীর কাজ করেন।

ছোটবেলা থেকেই বেবি পড়াশুনায় খুব আগ্রহী। টানাপোড়েনের সংসারে অনেক কষ্ট করে তার পড়ার খরচ জোগান তার মা মালা বাস্পর। মেয়ে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারায় তিনি আনন্দিত।

মালা বাস্পর বলেন, অনেক কষ্টের মধ্যেও আমার মেয়ে লেখাপড়া করে যাচ্ছে। এবার সে ম্যাট্রিক পরীক্ষা দিচ্ছে। এতে আমি খুব আনন্দিত। সবাই আমার মেয়ের জন্য দোয়া করবেন সে যেন অনেক বড় হতে পারে। মালা বাস্পর যখন কথাগুলো বলছিলেন তখন তার চোখের কোণে টলমল করছে জল।

জীবনের অন্যতম বড় পাবলিক পরীক্ষা এবং পড়াশোনা প্রসঙ্গে বেবি বাস্পর জানায়, যত কষ্টই হোক মা আমাকে সবসময়ই পড়ার খরচ জুগিয়েছেন। বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা আমাকে অনেক সহযোগিতা করেছেন। এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পেরে আমি খুব আনন্দিত। আমি চাই আমার সম্প্রদায়ের ছেলেমেয়েরা যেন পড়াশুনা করে উচ্চশিক্ষিত হতে পারে। আমি জীবনে অনেক বড় হতে চাই।
বেবি আরও জানায়, সে পড়ালেখা শেষ করে প্রশাসনের কর্মকর্তা হতে চায়।

বিষয়টি জেনে দুর্গাপুরের অনেকে আনন্দ প্রকাশ করেছেন। স্থানীয় কলেজের প্রভাষক কবি জনপদ চৌধুরী বলেন, দুর্গাপুরে যে সম্প্রদায়ে কোনো শিক্ষার আলো ছিল না সেখানে ব্যতিক্রম বেবি বাস্পর। তার এ প্রচেষ্টা যেন অব্যাহত থাকে সেজন্য নাগরিক সমাজের সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। তার পাশে দাঁড়াতে হবে। যতটা সম্ভব সহযোগিতা করতে হবে।

উন্নয়নকর্মী মোরশেদ আলম বলেন, বেবি বাস্পর যেভাবে এসএসসি পরীক্ষায় অবতীর্ণ হয়েছে সেটি সত্যিই প্রশংসনীয়। এই পরিশ্রম তার জীবনে ফুল হয়ে ফুটুক। আমরা তাকে যথাসাধ্য সহযোগিতা করব।
কলেজ শিক্ষক দীপক সরকার বলেন, বেবি বাস্পরের এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণের বিষয়টি ইতোমধ্যে অনেকে জেনেছেন। সমাজের সবাইকে তার পাশে দাঁড়াবার আহবান জানাই।

জানতে চাইলে দুর্গাপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাজিব উল আহসান বলেন, বেবি বাস্পর মেধাবী শিক্ষার্থী। তার কোনো সহযোগিতার দরকার হলে আমরা তা করব। আশা করছি সে খুব ভালো রেজাল্ট করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© স্বত্ব সংরক্ষিত  রংপুর বার্তা- ২০২২
Theme Customized By Dev Joynal